Header Ads Widget

বলের ঘাত ও ঘাত বলের সংজ্ঞা উদাহরণ একক মাত্রা | বলের ঘাত ও ঘাত বলের পার্থক্য | বলের ঘাত ভরবেগের পরিবর্তনের সমান - ব্যাখ্যা করো

বলের ঘাত ও  ঘাত বল নবম শ্রেণীর ভৌত বিজ্ঞানের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যা অনেক সময় ছাত্রছাত্রীরা গুলিয়ে ফেলে।আজকে আমরা আলোচনা করব বলের ঘাত ভরবেগের পরিবর্তনের সমান - ব্যাখ্যা , বলের ঘাতঘাত বল আসলে আলাদা এবং এদের পার্থক্য একক ও মাত্রা নিয়ে।

বলের ঘাত ও ঘাত বল কাকে বলে


বলের ঘাত কাকে বলে?

কোনো বস্তুর উপর স্থির মানের কোনো বল কিছু সময় ধরে ক্রিয়া করলে, ওই বলের মান এবং ক্রিয়া করার সময় এর গুণফলকে ওই বলের ঘাত বা আবেগ বলা হয়।

বলের ঘাত=প্রযুক্ত বল × সময়

বলের ঘাত এর একক কি?

বলের ঘাতের  একক সিজিএস পদ্ধতিতে "ডাইন সেকেন্ড" এবং এস আই পদ্ধতিতে "নিউটন সেকেন্ড" ।

বলের ঘাতের মাত্রা কি?

বলের ঘাতের মাত্রা = বলের মাত্রা × সময়ের মাত্রা = [MLT-2][T] =[ MLT-1 ]

বলের ঘাত ভরবেগের পরিবর্তনের সমান - ব্যাখ্যা করো।


ধরি m ভরের কোন বস্তুর উপর t সময় ধরে F মানের একটি বল প্রয়োগ করায় বস্তুটির বেগ u থেকে বেড়ে v হল ।
এ ক্ষেত্রে প্রযুক্ত বলের ঘাত (I) =F×t
আবার নিউটনের দ্বিতীয় গতিসূত্র অনুসারে, প্র
প্রযুক্তি বল (F) = ma=m×( v-u)/t
বা, Ft=m(v-u)
বা, I=m(v-u)
বলের ঘাত = বস্তুর ভরবেগের পরিবর্তন।

ঘাত বল কাকে বলে?

কোন বস্তুর ওপর যখন বড় মানের কোন বল খুব অল্প সময়ের জন্য ক্রিয়া করে তখন ওই বল কে ঘাতবল বলা হয়।

ঘাত বল ও বলের ঘাত এর উদাহরণ


বাহুবলি সিনেমা তে বাহুবলী ও কালকেয়া এর সেনাবাহিনীর যুদ্ধের সময় কালকের সেনারা একটি তিনটি গাছের গুড়ির সাহায্যে বাহুবলির সেনাদের ঢালেরঘেরা কে কে ভাঙ্গার চেষ্টা করে এই 'ঘাত বলের' মাধ্যমে।অন্যদিকে বাহুবলির সেনারা 'বলের ঘাত' প্রয়োগ করে থাকে যাতে বিরোধীদের আটকানো যায় ।শেষ পর্যন্ত ঘাত বল জয়ী হয়।

ঘাত বলের আরও উদাহরণ হিসেবে নিচের দৃষ্টান্ত গুলি হল:


  • ফুটবলে ঠিক করার সময় ফুটবলে পা দিয়ে যে বল প্রয়োগ করা হয় তা ঘাত বল।
  • পেরেক এর উপর হাতুর দিয়ে যে বল প্রয়োগ করা হয় তা ঘাতবল।
  • ক্রিকেট খেলার ব্যাটসম্যান ব্যাট দিয়ে বল এর উপরে ঘাত বল প্রয়োগ করে।

ঘাত বলের একক কী ?

যেহেতু ঘাতবল এক প্রকারের বল যা ক্ষণস্থায়ী তাই ঘাট বলের একক ও বলের একক ভিন্ন নয়। তাই ঘাত বলের একক সিজিএস পদ্ধতিতে ডাইন ও এস আই পদ্ধতিতে নিউটন।

ঘাত বলের মাত্রা কি?

ঘাত বলের মাত্রা [MLT-2]

বলের ঘাত ও ঘাত বলের পার্থক্য


বলের ঘাত ঘাত বল
1. বস্তুর উপর প্রযুক্ত বলের মান ও ক্রিয়াকাল এর গুণফল হলো বলের ঘাত। 1. বৃহৎ মান বিশিষ্ট ক্ষণস্থায়ী বল হল ঘাত বল।
2. বলের ঘাত হলো ফলাফল (Effect) 2. ঘাত বল হল কারণ (Cause)
3. বলের ঘাতের মাত্রা [MLT-1] 3. বলের ঘাতের মাত্রা [MLT-2]
4. বলের ঘাতের প্রভাবে বস্তুর ভরবেগের পরিবর্তন ঘটে। 4. ঘাত বলের প্রভাবে বস্তুতে অল্প সময়ে বৃহৎ ত্বরণ সৃষ্টি হয়।
5. বলের ঘাত এর ক্ষেত্রে ক্রিয়াশীল বল F=ma সমীকরণ মেনে চলে। অর্থাৎ ভর ও ত্বরণের গুণফল দ্বারা ক্রিয়াশীল বলের পরিমাপ করা হয়। 5. ঘাত বলের ক্ষেত্রে ক্রিয়াকাল অল্প হওয়ায় ভরবেগের পরিবর্তনের দ্বারা ঘাত বলের (F.t) পরিমাপ করা হয়।