নবম শ্রেণীর জীবন বিজ্ঞান অধ্যায় 3 : জৈবনিক প্রক্রিয়া এর প্রশ্ন-উত্তর মক টেস্ট তৈরি চলছে। সাবস্ক্রাইব করুন

ক্লাস VII মানুষের খাদ্য | অধ্যায় 5 | পরিবেশ ও বিজ্ঞান | WBBSE Class VII Question answer suggestion

Class 7 Paribeshok Bigyan Chapter 5 WBBSE exam suggestio | মানুষের খাদ্য প্রশ্ন উত্তর | কার্বোহাইড্রেট - প্রোটিন - ফ্যাট
আজকের এই আলোচনায় সপ্তম শ্রেণীর পরিবেশ ও বিজ্ঞান বই এর অধ্যায় 5 : মানুষের খাদ্য বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন উত্তর ও মক টেস্ট নিয়ে এসেছি। তুমি যদি সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রী হও তাহলে অবশ্যই এই পোস্টটি থেকে তুমি উপকৃত হবে।

সপ্তম শ্রেণী পরিবেশ অধ্যায় 5


অধ্যায়: 5. মানুষের খাদ্য ( ক্লাস VII )

খাদ্য উপাদান

1. কাজ করার জন্য _____ প্রয়োজন।

উত্তর: শক্তির। 

2. আমরা কাজ করার জন্য শক্তি পাই ___ থেকে। 

উত্তর: খাদ্য। 

3. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বলে ______। 

উত্তর: অনাক্রম্যতা। 

4. রোগ প্রতিরোধক উপাদানের উৎস কি ?

উত্তর: খাদ্য। 

5. কোন খাদ্য উপাদানের অভাবে রাতকানা রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন A।

6. কোন খাদ্য উপাদানের অভাবে চোখের কোন ফ্যাকাসে হয়? 

উত্তর: খনিজ মৌল ( লৌহ )।

7. ঠোঁট ও জিভে ঘা হয় কিসের অভাবে?

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স। 

8. মাড়ি ফোলা ও রক্ত পড়া কিসের অভাবে ঘটে? 

উত্তর: ভিটামিন C।

9. কোন খনিজ মৌলের অভাবে প্রায়ই হাড় ভেঙে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়? 

উত্তর: ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস নামক খনিজ মৌল। 

10. সবজিতে কোন কোন খাদ্য উপাদান বেশি থাকে? 

উত্তর: খনিজ মৌল ও তন্তু। 

11. ফলে কোন কোন খাদ্য উপাদান বেশি থাকে? 

উত্তর: ভিটামিন ও খনিজ মৌল। 

12. তেলে কোন খাদ্য উপাদান বেশি থাকে? 

উত্তর: লিপিড। 

13. মাছে কোন কোন খাদ্য উপাদান বেশি থাকে? 

উত্তর: প্রোটিন ও শর্করা। 

14. খাদ্যের উপাদানগুলিকে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ও কি কি?

উত্তর: খাদ্যের উপাদান গুলিকে আটটি ভাগে ভাগ করা যায়। যথা: 

  1. শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট 
  2. প্রোটিন 
  3. লিপিড
  4. ভিটামিন 
  5. জল 
  6. খনিজ মৌল 
  7. খাদ্য তন্তু 
  8. উদ্ভিজ্জ রাসায়নিক বা ফাইটোকেমিক্যাল 

এগুলির মধ্যে প্রথম ছয়টি উপাদান খাদ্যের প্রধান উপাদান।

15. শর্করা বা কার্বোহাইড্রেটের 4টি খাদ্য উৎস লেখ। 

উত্তর: ভাত, রুটি, দুধ, ফল ইত্যাদ।

16. প্রোটিনের তিনটি খাদ্য উৎস লেখো। 

উত্তর: মাছ, মাংস, ডিম।

17. লিপিডের 4টি খাদ্য উৎস লেখ। 

উত্তর: মাখন, তেল, বাদাম, নারকেল।

18. জলের চারটি খাদ্য উৎস লেখো। 

উত্তর: পানীয় জল, ফল, সবজি, কোলড্রিঙ্কস।

19. ভিটামিনের তিনটি খাদ্য উৎস লেখ। 

উত্তর: টমেটো, আমলকি, গাজর।

20. খুনিজ মৌলের পাঁচটি খাদ্য উৎস লেখ।

উত্তর: দুধ, নুন, চাল, গুড়, ডাটাশাক, মাংস।

21. উদ্ভিজ্জ রাসায়নিক বা ফাইটো কেমিক্যাল এর তিনটি খাদ্য উৎস লেখ। 

উত্তর: চা, পাকা আম, পাকা পেঁপে। 

কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা

22. কার্বোহাইড্রেট বা শর্করার উদ্ভিজ্জ খাদ্য উৎস লেখ।

উত্তর: আখ, খেজুর, তাল, আম, চিনি, গাজর, কলা, গম, আনারস, ভুট্টা, আপেল, আঙ্গুর, চাল, বিট, রাঙা আলু, লাল শাক, মসুর ডাল, মুগ ডাল, জোয়ার ও বাজরা।

23. কার্বোহাইড্রেট বা শর্করার প্রাণীজ  খাদ্য উৎস লেখ।

উত্তর: মাংস, পাঠার যকৃত (মেটে) , দুধ, মধু ইত্যাদি। 

24. গ্লুকোজ শরীরের সমস্ত অংশের সীমানায় কিভাবে পৌঁছায়? 

উত্তর: রক্তের মাধ্যমে। 

25. গ্লুকোজ থেকে শক্তি তৈরি হতে ____ এর সাহায্য লাগে। 

উত্তর: অক্সিজেন। 

26. রক্তে গ্লুকোজ বেড়ে যাওয়াকে কি বলে? 

উত্তর: মধুমেহ বা ডায়াবেটিস। 

27. মধুমেহ বা ডায়াবেটিস কেন হয়?

উত্তর: রক্ত থেকে গ্লুকোজ যদি কোষে প্রবেশ করতে না পারে তখন তার রক্তে জমে যায়। মূত্রের মাধ্যমে সেই গ্লুকোজ বেরিয়ে যায়। দেহের এই অবস্থাকেই মধুমেহ বা ডায়াবেটিস বলে। এই রোগে, হৃদপিণ্ড, বৃক্ক, চোখ ইত্যাদিতে নানান সমস্যা দেখা দেয়।

প্রোটিন ( Protein )

28. মানুষের দেহের টেন্ডন ও লিগামেন্ট কি দিয়ে তৈরি?

উত্তর: প্রোটিন দিয়ে তৈরি। 

29. ডিমের সাদা অংশে কোন খাদ্য উপাদান বেশি থাকে? 

উত্তর: প্রোটিন। 

30. নখ ও চুলে কোন প্রোটিন থাকে? 

উত্তর: কেরাটিন। 

31. পেশীতে কোন কোন প্রোটিন থাকে?

উত্তর: অ্যাকটিন ও মায়োসিন।

32. লোহিত রক্তকণিকায় কোন প্রোটিন থাকে? 

উত্তর: হিমোগ্লোবিন। 

33. রক্তের প্লাজমা বা রক্তরসে কোন কোন প্রোটিন থাকে?

উত্তর: গ্লোবিউলিন, ফাইব্রিনোজেন ইত্যাদি। 

34. অস্থি, টেন্ডন ও লিগামেন্ট ইত্যাদি কি প্রোটিন দ্বারা তৈরি? 

উত্তর: কোলাজেন। 

35. দেহে প্রোটিনের ভূমিকা লেখ।

উত্তর: প্রোটিন শক্তি উৎপন্ন করতে, দেহের বিভিন্ন অংশ বা কলা গঠনে, ক্ষত সারাতে, শ্বাসবায়ু পরিবহনে, পেশীর সংকোচনে ভিন্ন ভিন্ন প্রোটিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। দেহের রোগ প্রতিরোধে ও প্রোটিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কোন জায়গায় কেটে গেলে ওই জায়গায় রক্ত পড়া বন্ধ করতেও রক্তের প্লাজোমায় থাকা প্রোটিন সাহায্য করে।

36. অতিরিক্ত প্রোটিন শরীরে জমলে কি সমস্যা সৃষ্টি হয়? 

উত্তর: অতিরিক্ত প্রোটিন শরীরের জমলে বাত, কিডনি স্টোন ও অন্যান্য সমস্যা সৃষ্টি হয়।

37. প্রোটিনের উদ্ভিজ্জ খাদ্য উৎস লেখ। 

উত্তর: মাছ, মাংস, ডিম, ছানা, পনির, কাকড়া, দুধ ইত্যাদি।

38. প্রোটিনের প্রাণিজ খাদ্য উৎস লেখো। 

উত্তর: মসুর ডাল, মুগ ডাল, গম, মটরশুঁটি, জিরা ইত্যাদি। 

লিপিড ( lipid )

39. কোন খাদ্য উপাদান দেহে জমা হলে দেহ মোটা বা স্থূল হয়ে যায়?

উত্তর: লিপিড। 

40. দেহে লিপিডের ভূমিকা লেখ। 

উত্তর: লিপিড মানুষের দেহে শক্তির উৎসরূপে কাজ করে। লিপিড দেহকে বাইরের আঘাত থেকে রক্ষা করে। দেহের থেকে তাপ বেরিয়ে যাওয়া কমিয়ে দেয়। 

41. শরীরে অতিরিক্ত লিপির জমা হলে কোন কোন অঙ্গে সমস্যা দেখা দেয়?

উত্তর: অতিরিক্ত লিপিড জমা হলে হৃদপিণ্ড, রক্তনালী ও যকৃতের নানান সমস্যা তৈরি হয়। 

42. লিপিড এর দুটি উদ্ভিজ্জ ও দুটি প্রাণিজ খাদ্য উৎসের এর নাম লেখ।

উত্তর: উদ্ভিজ্জ উৎস: তেল, বাদাম, নারকেল, কাঁঠাল ।

প্রাণিজ উৎস: মাছ, ঘি, ডিম, মাখন, দুধ, মাছের তেল।

ভিটামিন (Vitamin)

43. কোন ভিটামিনের অভাবে স্কার্ভি রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন C ।

44. ভিটামিন কে আবিষ্কার করেন? 

উত্তর: কাসিমমির ফ্রাঙ্ক।

45. ভিটামিন কি দেহে শক্তি উৎপন্ন করে? 

উত্তর: না, ভিটামিন দেহে শক্তি উৎপন্ন করে না।

46. ভিটামিন কয় ধরনের ও কি কি?

উত্তর: দ্রবণীয়তার উপর ভিত্তি করে ভিটামিন কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়। যথা:

তেলে বা ফ্যাটে দ্রবণীয় ভিটামিন: A, D, E, K

জলে দ্রবণীয় ভিটামিন: B কমপ্লেক্স, C

47. ভিটামিন A এর উৎস ও কাজ লেখ? 

উত্তর: উৎস: গাজর, ডিম, পাকা পেঁপে, টমেটো, দুধ, মাছ ইত্যাদি।

কাজ: চোখ, চামড়া, হাড়, দাঁত ও খাদ্যনালীর গঠন ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

48. ভিটামিন D এর উৎস ও কাজ লেখ।

উত্তর: উৎস: মাখন, দুধ, ডিম, মাছ।

কাজ: হাড় ও দাঁতের গঠন স্বাভাবিক রাখে। 

49. ভিটামিন E এর উৎস ও কাজ লেখ? 

উত্তর: উৎস: বাঁধাকপি, কাজুবাদাম, ডিম ভুট্টা, লেটুস শাক।

কাজ: ত্বক, লোহিত রক্তকণিকা, হৃদপিণ্ড ও মস্তিষ্কের সক্রিয়তা বজায় রাখে।

50. কোন ভিটামিন কেটে গেলে রক্ত পড়া বন্ধ করে?

অথবা, কোন ভিটামিন রক্ততঞ্চনে সাহায্য করে? 

উত্তর: ভিটামিন K।

51. ভিটামিন K এর উৎস ও কাজ লেখ।

উত্তর: উৎস: মাখন, দুধ, কাঁচা মটরশুঁটি, পালং শাক, বাঁধাকপি।

52. কোন ভিটামিনের অভাবে রাতকানা রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন A।

53. কোন ভিটামিনের অভাবে হাড় ও মেরুদন্ড বেঁকে যায়? 

উত্তর: ভিটামিন D।

54. কোন ভিটামিনের অভাবে ক্ষতস্থানে রক্ত সহজে জমাট বাঁধে না? 

উত্তর: ভিটামিন K ।

55. ভিটামিন C এর খাদ্য উৎস ও কাজ লেখ।

উত্তর: উৎস: লেবু জাতীয় ফল, অঙ্কুরিত বীজ, কাঁচালঙ্কা, টমেটো, পেয়ারা, মাতৃ দুগ্ধ।

কাজ: কলা মেরামত, কোলাজেন গঠন, কয়েকটি এনজাইমের কার্যকারিতার জন্য প্রয়োজনীয় এবং ইমিউন সিস্টেম অনাক্রমতা এর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। 

56. কোন ভিটামিনের অভাবে ঠোঁট ফেটে যায়?

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স। 

57. কোন ভিটামিনের অভাবে চোখের নিচ ও নখ ফ্যাকাসে হয়ে যায়? 

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স। 

58. কোন ভিটামিনের অভাবে মাড়ি থেকে রক্ত পড়া (স্কার্ভি) ও দাগ পড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়? 

উত্তর: ভিটামিন C।

59. কোন ভিটামিনের অভাবে স্নায়ুর দুর্বলতা সৃষ্টি হয়? 

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স। 

60. কোন ভিটামিনের অভাবে অ্যানিমিয়া হয়? 

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স।

61. কোন ভিটামিনের অভাবে স্মৃতিভ্রম বা ভুলে যাওয়া রোগ দেখা যায়? 

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স।

খনিজ মৌল ( Minerals )

62. উদ্ভিদরা কোথা থেকে খনিজ মৌল সংগ্রহ করে? 

উত্তর: মাটি বা মাটির নিচে থাকা জল থেকে। 

63. প্রাণীরা কোথা থেকে দেহের জন্য প্রয়োজনীয় খনিজ মৌল সংগ্রহ করে? 

উত্তর: প্রাণীরা বিভিন্ন উদ্ভিজ্জ খাদ্য প্রাণিজ খাদ্য বা জল থেকে খনিজ পদার্থগুলো সংগ্রহ করে। 

64. কোন খনিজ মৌল দেহের জলের পরিমাণ নির্দিষ্ট রাখে? 

উত্তর: সোডিয়াম। 

65. কোন খনিজ মৌল পেশি সংকোচন স্বাভাবিক রাখে? 

উত্তর: ক্যালসিয়াম। 

66. কোন খনিজ মৌল কোথাও কেটে গেলে রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে?

উত্তর: ক্যালসিয়াম। 

67. কোন খনিজ মৌল রক্তে অক্সিজেন পরিবহনে সাহায্য করে? 

উত্তর: আয়রন বা লৌহ।

68. কোন খনিজ মৌল দাঁত ও হাড় গঠন করে? 

উত্তর: ক্যালসিয়াম ফসফরাস ও ম্যাগনেসিয়াম।

69. কোন খনিজ মৌল মানসিক বৃদ্ধি ও বুদ্ধি নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে? 

উত্তর: আয়োডিন।

70. কোন খনিজ মৌল মস্তিষ্কের গঠন ও রক্তে শর্করার পরিমাণ ঠিক রাখে? 

উত্তর: জিংক।

71. নিচের খনিজ মৌল গুলির একটি করে উৎস লেখ:

ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, সোডিয়াম, আয়োডিন, জিঙ্ক 

উত্তর:

খনিজ মৌলপানীয় / খাদ্য উৎস
ক্যালসিয়ামদুধ, ডিম
ফসফরাসদুধ, চিংড়ি
ম্যাগনেসিয়ামশাকসবজি
সোডিয়ামলবণ, পানীয় জল
আয়োডিনলবণ
জিংকশাকসবজি
আয়রনযকৃত, আমলকি

72. কোন মৌলের অভাবে দেহে উচ্চ রক্তচাপ দেখা যায়? 

উত্তর: সোডিয়াম। 

73. কোন মৌলের অভাবে অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা রোগ হয়? 

উত্তর: আয়রন। 

74. কোন মৌলের অভাবে গলগন্ড বা গয়টার রোগ হয়? 

উত্তর: আয়োডিন। 

75. কোন কোন মৌলের অভাবে বারবার হাড় ভেঙ্গে যায়? 

উত্তর: ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস। 

76. কোন মৌলের অভাবে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যায়? 

উত্তর: জিংক। 

জল ( Water)

77. মানুষের দেহে শতকরা কত শতাংশ জল? 

উত্তর: 64 শতাংশ ।

78. দেহে ব্যবহৃত জলের উৎস লেখক। 

উত্তর: 

  • পানীয় জলের মাধ্যমে ।
  • ফলের রস থেকে।
  • বিভিন্ন খাদ্য থেকে । যেমন - ভাত।
  • বিভিন্ন তরল পানীয় থেকে। যেমন - ডাবের জল।

খাদ্য তন্তু ( Dietary fiber )

79. খাদ্যতন্ত্র হলো এক ধরনের _____ ।

উত্তর: সেলুলোজ। 

80. খাদ্য তন্তুর উৎস লেখ। 

উত্তর: সজনে ডাঁটা, বাঁধাকপি, আপেল, অঙ্কুরিত ছোলা, গম ইত্যাদি।

81. তন্তুসমৃদ্ধ খাদ্য খেলে কি উপকার হয়? 

উত্তর: তন্তু সমৃদ্ধ খাদ্য খেলে কতগুলো রোগ হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায় । যেমন- উচ্চ রক্তচাপ, স্থুলত্ব, অন্ত্রের ক্যান্সার ও কোষ্ঠকাঠিন্য।

82. দুটি ফাইটোকেমিক্যাল এর নাম লেখো। 

উত্তর: ক্যারোটিনয়েড, ফ্লাভোনয়েড ।

83. ফাইটোকেমিক্যাল এর কাজ কি ? এর ভূমিকা লেখ। উত্তর: ফাইটোকেমিক্যাল বার্ধক্য আটকায়। হৃদপিন্ডের কাজ ঠিকঠাক রাখে। ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা কমায়। 

84. দুধ ছানা আর কোল্ড ড্রিংকসের বদলে কি খাওয়া উচিত? 

উত্তর: ছাতুর শরবত। 

85. আইরন টনিকের বদলে কি খাওয়া উচিত? 

উত্তর: নটেশাক।

অপুষ্টি ও স্থূলত্ব 

86. কোন মৌলের অভাবে গয়টার রোগ হয়? 

উত্তর: আয়োডিন। 

87. কোন মৌলের অভাবে অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা রোগ হয়? 

উত্তর: আয়রন বা লৌহ। 

88. কোন মৌলের অভাবে মানুষের ট্যারা চোখ দেখা যায়? 

উত্তর: আয়োডিন। 

89. ম্যারাসমাস কি? 

উত্তর: এক বছরের কম বয়স্ক শিশুদের প্রোটিন ও শক্তির অভাবে দেহের হাড় গুলি ক্ষয়ে যায়। হাত পা গুলো সরু হয়ে যায়। চামড়া জায়গায় জায়গায় কোচকানো। এই রোগটিকে ম্যারাসমাস বলে।

90. কিসের অভাবে ম্যারাসমাস হয়?

উত্তর: প্রোটিন ও শক্তির অভাবে।

91. কোয়াসশিওরকর কি?

উত্তর: এক থেকে চার বছরের শিশুদের উপযুক্ত পরিমাণ প্রোটিনের অভাব ঘটলে দেখা যায় শিশুর গায়ের চামড়া গাড়ো বর্ণের ও পেট ফোলা। দেখে মনে হয় যেন চোখগুলো ঠিকরে বেরিয়ে আসছে। এই রোগটিকে কোয়াসশিওরকর বলে।

92. কিসের অভাবে কোয়াসশিওরকর হয়?

উত্তর: উপযুক্ত পরিমাণ প্রোটিনের অভাবে।

93. কোন মৌলের অভাবে চামচ আকৃতির নখ সৃষ্টি হয়? 

উত্তর: আয়রন বা লৌহ। 

94. কোন ভিটামিনের অভাবে রিকেট রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন D। 

95. কোন ভিটামিনের অভাবে বেরিবেরি রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন B কমপ্লেক্স। 

96. কোন ভিটামিনের অভাবে অন্ধত্ব ও রাতকানা রোগ হয়? 

উত্তর: ভিটামিন A।

97. লৌহ সমৃদ্ধ পাঁচটি খাদ্য উচ্ছে এর নাম লেখ। 

উত্তর: পেয়ারা, আটা, জিরা, জোয়ান, কচু শাক, নটে শাক, ধনেপাতা, কলমি শাক, গুড় ইত্যাদি।

98. ভিটামিন বি কমপ্লেক্স যুক্ত দুটি খাবার এর নাম লেখ। 

উত্তর: ঢেঁকিছাঁটা চাল, সবুজ শাকসবজি। 

99. বিভিন্ন ভিটামিন ও তাদের অভাবজনিত ফল ছকের মাধ্যমে দেখাও। 

ভিটামিনঅভাবজনিত ফল
Aরাতকানা রোগ, অন্ধত্ব, চোখের মনিতে সাদা দাগ, খসখসে চামড়া
B কমপ্লেক্সবেরিবেরি, স্নায়ুর দুর্বলতা, ঠোঁট ফেটে যাওয়া, জিভে ঘা, মুখের কোণে ঘা , মাড়ি ফোলা, চোখের নিচ ও নখ ফ্যাকাসে
Cস্কার্ভি রোগ
Dহাত পা বাঁকা, রিকেট রোগ
Cস্কার্ভি, মাড়ি থেকে রক্ত পড়া
Kক্ষতস্থানে রক্ত জমাট না বাধা

100. বয়স ও উচ্চতার তুলনায় শতকরা কত শতাংশ ওজন বেশি হলে তাকে স্থুল বা মোটা বলা হবে? 

উত্তর: 20 শতাংশ।

101. রক্তচাপ বেড়ে গিয়ে ____ রোগ হতে পারে। 

উত্তর: ডায়াবেটিস। 

102. রক্তনালীর গায়ের লিপিড জমলে কি সমস্যা হয়? 

উত্তর: হৃদপিন্ডের নানা সমস্যা হতে পারে। 

103. একজন স্বাভাবিক ওজনের মানুষের BMI কত? 

উত্তর: 25 - 30 এরমধ্যে। 

প্রাকৃতিক খাদ্য, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য, সংশ্লেষিত খাদ্য

104. 3 টি সংশ্লেষিত খাদ্যের উদাহরণ দাও? 

উত্তর: কোলড্রিংস, জ্যাম, জেলি।

105. বিরিয়ানিতে কোন ক্ষতিকারক রাসায়নিক মেশানো থাকে?

উত্তর: মেটানিয়াল ইয়েলো।

106. চকলেট, পেস্ট্রি ও কোল্ড্রিংসে কোন ক্ষতিকারক পদার্থ মেশানো থাকে? 

উত্তর: ক্যারামেল।

107. চাওমিন মতে কোন ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থ মেশানো থাকে? 

উত্তর: আজিনোমোটো।

108. চা কফিতে কোন ক্ষতিকারক রাসায়নিক মেশানো থাকে?

উত্তর: সাইক্লামেট, স্যাকারিন ইত্যাদি। 

109. প্রক্রিয়াজাত খাবার খেলে শরীরের কি সমস্যা হয়? 

উত্তর: প্রক্রিয়াজাত খাবারে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকারক পদার্থ যেমন কৃত্রিম রং ও গন্ধের জন্য বিভিন্ন রাসায়নিক মেশানো হয়। এগুলি বেশি খেলে আমাদের শরীরে নানান রকমের অসুবিধা বা হৃৎপিণ্ড, যকৃত, বৃক্ক, হাড় ও মস্তিষ্কের ক্ষতি হতে পারে। 

110. নিচের খাবারগুলির মধ্যে কোনগুলি প্রাকৃতিক, কোনগুলি প্রক্রিয়াজাত ও কোনগুলি সংশ্লেষিত তা শনাক্ত করো।

উত্তর: আইসক্রিম, চিকেন রোস্ট, কফি, চাওমিন, কাঁচা ডিম, বাঁধাকপি, বার্গার, বিভিন্ন ফল , কোলড্রিংস, ছানা, আলুর চপ, ভাত, মুড়ি

প্রাকৃতিক: বিভিন্ন ফল, কাঁচা ডিম, বাঁধাকপি 

প্রক্রিয়াজাত: চিকেন রোস্ট, ছানা, আলুর চপ, ভাত, মুড়ি।

সংশ্লেষিত: আইসক্রিম, চাওমিন, বার্গার, কোলড্রিংস।

জীবনে জলের ভূমিকা

111. পৃথিবীর মোট দলের শতকরা কত শতাংশ মিষ্টি জল ও কত শতাংশ নোনা জল? 

উত্তর: ৩ শতাংশ মিষ্টি জল ও ৯৭ শতাংশ নোনা জল। 

112. পৃথিবীর মোট মিষ্টি জলের শতকরা কত শতাংশ ভৌম জল ও কত শতাংশ ভূপৃষ্ঠীয় জল? 

উত্তর: মোট মিষ্টি জলের শতকরা 30.1 শতাংশ ভৌম জল এবং 0.3 শতাংশ ভুপৃষ্ঠীয় জল।

113. পৃথিবীর মোট জলের হিসাবে সমুদ্রের জল মিষ্টি জল ও পানীয় জলের শতকরা হার লেখ।

উত্তর: সমুদ্রের জল 97 % , মিষ্টি জল 3 % এবং পানীয় জল মিষ্টি জলের 0.37 % ।

114. কিভাবে বাড়িতে বিশুদ্ধ পানীয় জল তৈরি করা হয়? 

বিভিন্ন পদ্ধতিতে পানীয় জল তৈরি করা হয়। যেমন: 

  • জলের উৎস থেকে জল পাওয়ার পর অন্তত কুড়ি মিনিট ফুটিয়ে ঠান্ডা করে ছেঁকে নেওয়া। 
  • ফিল্টার যন্ত্রের মাধ্যমে জলকে ফিল্টার করা। 
  • খুব তাড়াতাড়ি জলকে জীবনে মুক্ত করতে হ্যালোজেন ট্যাবলেট দিয়ে শোধন করা।

115. জলকে জীবাণুমুক্ত করতে কি ট্যাবলেট ব্যবহার করা হয়?

উত্তর: হ্যালোজেন ট্যাবলেট কিংবা ক্লোরিন ট্যাবলেট।

বি: দ্র: ক্লোরিন এক ধরনের হ্যালোজেন মৌল। 

116. মানুষের শরীরের শতকরা কত শতাংশ জল? 

উত্তর: 70 % ।

117. জেলিফিসের দেহে শতকরা কত শতাংশ জল? 

উত্তর: 95 % ।

118. কাঠের মধ্যে শতকরা কত শতাংশ জল ?

উত্তর: 10 % ।

119. মানুষের রক্তে শতকরা কত শতাংশ জল? 

উত্তর: 90 % ( ওজন হিসাবে )। কিন্তু পরিমাণের হিসাবে মানুষের রক্তে শতকরা প্রায় ৫৫ শতাংশ জল। 

120. মানুষের মস্তিষ্কে শতকরা কত শতাংশ জল? 

উত্তর: 73 শতাংশ ।

121. আজকের মধ্যে জল কি রূপে থাকে? 

উত্তর: সেরিব্রোস্পাইনাল ফ্লুইড।

122. মানুষের শরীরে জলের ভূমিকা লেখ। 

উত্তর: জল সাধারণত বস্তুকে দ্রবীভূত করে। খাদ্য হজমের সময় বিভিন্ন রাসায়নিক বিক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে। জল তাপ পরিবাহক হিসেবে কাজ করে। 

123. জীবদেহে জলের ভূমিকা লেখ। 

উত্তর: জীবদেহে জলের ভূমিকা: 

  • জীবের প্রয়োজনীয় নানান বিক্রিয়া ঘটাতে ও জীবের বেঁচে থাকার তরল মাধ্যম রূপে কাজ করে। 
  • বাইরের পরিবেশের তাপমাত্রা দ্রুত বদলাতেও বড় চেহারার প্রাণীদের দেহের তাপমাত্রা নির্দিষ্ট রাখে। 
  • ঘাম হওয়া বা বাষ্পমোচন এর মাধ্যমে দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। 
  • সহজে বিভিন্ন বস্তুকে দেহের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পৌঁছে দেয়।
  • দলের গভীরে থাকা উদ্ভিদেও খাদ্য তৈরির জন্য আলো পেতে পারে।

123. ভাত তরকারির মধ্যে কত শতাংশ জল থাকে? 

উত্তর: 40 - 60 % ।

124. প্রতিদিন মূত্রের মাধ্যমে দেহ থেকে কি পরিমাণ জল বের হয়ে যায়? 

উত্তর: 1.5 - 2 লিটার।

125. শ্বাসের মাধ্যমে প্রতিদিন কি পরিমান জল দেহ থেকে বের হয়ে যায়?

উত্তর: 400 মিলি লিটার।

126. অশ্রুর মাধ্যমে কি পরিমান জল দেহ থেকে বের হয়ে যায়? 

উত্তর: প্রতিদিন 50 মিলি লিটার। 

127. সারা দিনে দেহ থেকে মোট কি পরিমান জল বের হয়ে যায়?

উত্তর: প্রায় 3 থেকে 3.5 লিটার।

128. গাছ খাবার তৈরীর সময় কি কি কাঁচামাল ব্যবহার করে? 

উত্তর: জল, কার্বন ডাই অক্সাইড ও খনিজ লবণ।

129. সালোকসংশ্লেষ প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন হওয়া অক্সিজেনের উৎস কি? 

উত্তর: জল।

130. কাকে গাছের রান্নাঘর বলে এবং কেন? 

উত্তর: পাতাকে গাছের রান্নাঘর বলে।

কারণ: মূলবা দেহের অন্যান্য অংশ দিয়ে শোষণ করা জল গাছ পাতায় পৌঁছে দেয়। গাছের খাবার তৈরি হয় মূলত এই পাতায় । তাই পাতাকে গাছের রান্নাঘর বলে। 

131. গাছ খাবার তৈরির জন্য কোন গ্যাস গ্রহণ করে? 

উত্তর: কার্বন ডাই অক্সাইড। 



About the Author

Teacher , Blogger, Edu-Video Creator, Web & Android App Developer, Work under Social Audit WB Govt.

Post a Comment

Please Comment , Your Comment is Very Important to Us.

All Chapter Contents

Cookie Consent
We serve cookies on this site to analyze traffic, remember your preferences, and optimize your experience.
Oops!
It seems there is something wrong with your internet connection. Please connect to the internet and start browsing again.
AdBlock Detected!
We have detected that you are using adblocking plugin in your browser.
The revenue we earn by the advertisements is used to manage this website, we request you to whitelist our website in your adblocking plugin.
Site is Blocked
Sorry! This site is not available in your country.