দশম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাঙ্ক : প্রশ্ন উত্তর সহ LSc-1


দশম শ্রেণি জীবন বিজ্ঞান মডেল অ্যাক্টিভিটি টাঙ্ক : LSc-1

নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর লেখাে :

1. স্নায়ু কোষের একটি পরিচ্ছন্ন চিত্র অংকন করো এবং নিম্নলিখিত অংশগুলি চিহ্নিত করো :
a) ডেনড্রন b)সোয়ান কোষ c) প্রান্তবুরুশ d)অ্যাক্সোলেমা
Ans. 
স্নায়ু কোষের চিত্র

মাধ্যমিক বন্ধু
পরীক্ষায় ভালো নম্বর পেতে এখনি ডাউনলোড করো


2. জীবের মধ্যে প্রকরণ সৃষ্টিতে মিয়োসিসের ভূমিকা উল্লেখ করো ।
  • Ans. মিয়োসিস- I এর প্রোফেজ দশায় সমসংস্থ ক্রোমোজোম এর নন সিস্টার ক্রোমাটিড এর মধ্যে সমতুল্য অংশের বিনিময় ঘটে এবং ক্রোমোজোমের নতুন অ্যালিল সমন্বয়ে গঠিত হয়। এই ঘটনাকে ক্রসিং ওভার বলা হয়।
  • ক্রসিং ওভার এর ফলে নতুন জিনগত পুনর্বিন্যাস ঘটে। এর ফলে প্রকরণ বা ভেদ সৃষ্টি হয়।এই প্রকরণ জীবকে অভিযোজনে সাহায্য করে এবং জীবের অভিব্যক্তি ঘটায়।

4. মাইটোসিস কোশ বিভাজনের অ্যানাফেজ দশার তিনটি বৈশিষ্ট্য লেখ ।
Ans. মাইটোসিস কোষ বিভাজনের সর্বাপেক্ষা স্বল্পস্থায়ী দশা হল অ্যানাফেজ দশা। এই দশার বৈশিষ্ট্য গুলি হল:

  • এই দশায় ক্রোমোজোমের সেন্ট্রোমিয়ার গুলি সমান দু'ভাগে বিভক্ত হয়ে যায়।
  • এই দশায় অপত্য ক্রোমোজোম গঠিত হয়।
  • এই দশায় অপত্য ক্রোমোজোম গুলি অর্ধেক বিষুব অঞ্চল থেকে বেমের দুটি বিপরীত মেরুর দিকে যাত্রা শুরু করে যা অ্যানাফেজীয় চলন নামে পরিচিত।
  • এই দশায় অপত্য ক্রোমোজোম গুলি পৃথক হওয়ায় ক্রোমোজোমের মাঝের তন্তু গুলিকে ইন্টারজোনাল তন্তু বলে।
  • এই দশার শেষে অপত্য ক্রোমোজোম গুলি ইংরেজি অক্ষর V (মেটাসেন্ট্রিক ক্রোমোজোম), L (সাবমেটাসেন্ট্রিক ক্রোমোজোম) , J (অ্যাক্রসেন্ত্রিক ক্রোমোজোম) , I (টেলসেন্ট্রিক ক্রোমোজোম) এর মত দেখায়।

5. অগ্রস্থ প্রকটতা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে যে উদ্ভিদ হরমােন তার তিনটি ভূমিকা লেখাে। 
Ans. অক্সিন হরমোন উদ্ভিদের অগ্রস্থ প্রকটতা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।
◾ অক্সিন হরমোনের তিনটি ভূমিকা:
  • অক্সিন হরমোন উদ্ভিদ কোষ বিভাজনে সাহায্য করে।অক্সিন হরমোন কোষ প্রাচীর কে নমনীয় করে এবং কোষপ্রাচীরের নতুন উপাদান সঞ্চিত করে কোষের সামগ্রিক বৃদ্ধি।
  • অক্সিন হরমোনের প্রভাবে উদ্ভিদ কোষ বিভাজিত হয় এবং কোষ আয়তনে বৃদ্ধি পায়।
  • কম ঘনত্বের অক্সিন মূলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
  • অক্সিন হরমোন উদ্ভিদের ফটোট্রপিক ও জিওট্রপিক চলন নিয়ন্ত্রণে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
7. রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ইনসুলিন হরমোনের ভূমিকা উল্লেখ করো।

Ans. ইনসুলিন রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। কলা কোষের ভেদ্যতা বাড়িয়ে কোষকে গ্লুকোজ গ্রহণে সাহায্য করে। গ্লাইকোজেনেসিস এর মাধ্যমে যকৃত পেশিতে গ্লুকোজকে গ্লাইকোজেন রূপে সঞ্চয় করা এবং প্রয়োজন অনুসারে গ্লুকোজ এর জারণ প্রভাবিত করা ইনসুলিন এর অন্যতম কাজ। গ্লাইকোজেন থেকে গ্লুকোজ উৎপাদনে অর্থাৎ গ্লাইকোজেনেসিস পদ্ধতিকে ইনসুলিন বাধা দেয়।

8. মাছের সন্তরণে পাখনার গুরু নিধারণ করে।
  • Ans. মাছের সাতটি পাখনার থাকে।পাখনা গুলি রশ্মিবিশিষ্ট হওয়ায় জলের চাপের ছিড়ে যায় না। প্রতিটি পাখনার গোড়া মজবুত পেশী সংলগ্ণ থাকে। পেশীগুলি সংকোচন-প্রসারণ ঘটিয়ে মাছ পাখা গুলিকে সঞ্চালন করে।
  • বক্ষ পাখনা গমনের সময় জলে ওঠা নামা করতে এবং স্থির ভাবে ভেসে থাকতে সাহায্য করে।
  • শ্রোণী পাখনা বক্ষ পাখনার মতোই কাজ করে।
  • পৃষ্ঠ পাখনা গমনের সময় মাছকে জল কেটে এগিয়ে যেতে এবং দেহের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।
  • পায়ু পাখনা গমনে বিশেষ ভূমিকা নেই।
  • পুচ্ছ পাখনা গমনের সময় দিক পরিবর্তনের সাহায্য করে।
10. হাঁটু ও কাঁধে কোন ধরনের অস্থিসন্ধি দেখা যায়।
Ans. হাটুতে কব্জা সন্ধি এবং কাঁধে বল সকেট অস্থিসন্ধি দেখা যায়।

মাধ্যমিক বন্ধু অ্যাপ্লিকেশন এখন প্লে স্টোরে নিচের আইকন এ ক্লিক করে ডাউনলোড করুন। একদম বিনামূল্যে


Get it on Google Play