Header Ads Widget

ফাকা আওয়াজ অমিতের, দেশজুড়ে এনআরসি কখনও সম্ভব নয়, যুক্তি দিয়ে বােঝালেন পিকে

পাটনা, ২০ ডিসেম্বর- বিহার তো হবেই না। গানটা দেশজুড়ে এনআরসি করা কখনও সম্ভব নয়। বৃহস্পতিবার এর সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্পষ্টতই এমনটা জানিয়ে দিয়েছেন এনডিএ শরিক দল জেডি(ইউ)-র সহ সভাপতি তথা ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশাের।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বারবার যে গােটা দেশে এনআরসি লাগু করার হুমকি দিচ্ছেন, তা ফাকা আওয়াজ ছাড়া আর কিছু নয়। এমনটাই মনে করছেন তিনি।

    প্রশান্তের দল নাগরিক আইনের সমর্থনে ভােট দিলে আগাগোড়া এই ফুলের কড়া প্রতিবাদ ও বিরোধিতা করে এসেছেন প্রশান্ত কিশোর। লোকসভা ও রাজ্যসভায় জেডি(ইউ) এই বিলকে সমর্থন করায় দলের সঙ্গে ফাটল দেখা দিয়েছে তার। এই পরিস্থিতিতেই এই মন্তব্য করেছেন প্রশান্ত।

    তার মতে, শুধু এনআরসি বা সিএএ-তে সমস্যা নেই। কিন্তু এনআরসি এবং সিএ এর যুগলবন্দীতে বিপদ দেখছেন তিনি। প্রশান্ত বলেছেন, নাগরিকপঞ্জি এবং নাগরিকত্ব আইন কিছুতেই একসঙ্গে মেনে নেওয়া যায় না। কেননা এই দুটি পাশাপাশি চলেএলে ধর্মের নিরিখে বৈষম্য শুরু হবে। শুধু ধর্ম নয়, মানুষের জাতপাত, অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে মানুষের ভোগান্তি পোয়াতি হবে। সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়বেন গরিব মানুষরা। যারা টাকার অভাবে এখনও পর্যন্ত নিজেদের নথিপত্র জোগাড় করে উঠতে পারেন না।

  প্রশান্ত কিশোরের ব্যাখ্যা, আমাদের দল সব সময়ই বলে এসেছে যে বিহার প্রয়ােজন নেই। নীতীশ আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন যে, এই জায়গা থেকে সরে আসবেন না। আর আমি নিশ্চিত বিহারে সেটা হবেও না।
   তার যুক্তি দেশে এই মুহূর্তে ১৬টি রাজ্যের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী রয়েছে। সেখানে ভারতের ৫ শতাংশ জনসংখ্যাও আছে। সে কারণেই আমি বলছি, দেশজুড়ে এনআরসি কখনও সম্ভব নয়।