VRP দের উপচে পড়া ভিড়ে ভাসলো কলকাতা । আসবে সফলতা ।VRP NEWS UPDATE 7TH NOV

নূন্যতম ১৫ হাজার টাকা বেতনের দাবিতে কলকাতার রাজপথে গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের বিশাল সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা, ৭ নভেম্বর :

দৈনিক ১৫০ টাকা মজুরিতে নয়, নূন্যতম বেতন কাঠামো চালু এবং চাকরির উপযুক্ত সম্মান ও নিরাপত্তার দাবিতে, পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আজ কলকাতার রানী রাসমণি রোডে ৩৩ হাজার ভিআরপি(গ্রামীন সম্পদ কর্মী) এক সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন।

এই সমাবেশ থেকে তাঁরা দাবি তুলেছেন, নূন্যতম ১৫ হাজার টাকা বেতন কাঠামো চালু করতে হবে এবং টিএ, ডিএ, স্বাস্থ্য বীমা প্রভৃতি চালু করতে হবে। একইসাথে, ৬২ বছর বয়স পর্যন্ত চাকরির নিশ্চয়তার দাবিও তুলেছেন তাঁরা।



গ্রামীন সম্পদ কর্মীদের দাবি, যেহেতু তাঁরা পরীক্ষার (২০১৬) মাধ্যমে চাকরিতে নিযুক্ত হয়েছিলেন এবং সারা বছর ধরে বিভিন্ন প্রকল্পতে গ্রামে গ্রামে তাঁদের কাজ করতে হয়, তাই মাত্র ১৫০ টাকা দৈনিক মজুরিতে তাঁদের পক্ষে আর কাজ করা সম্ভব নয়। 

তাই উপযুক্ত বেতন কাঠামো এবং চাকরির নিরাপত্তা দাবিতে আজ তাঁরা একত্রিত হয়েছিলেন। দাবি পূরণ না হলে, ভবিষ্যতে আরো বড় আন্দোলনের পথে যেতে তাঁরা বাধ্য হবেন বলে জানালেন।এই চরম বর্ধিত দ্রব্য মূল্যের বাজারে “গ্রামীণ সম্পদ কর্মী”দের সংসার চালান কোন ভাবেই সম্ভব হচ্ছে না।চরম দুঃখ দূর্দশা ও সংকটের মধ্যে ভি আর পি দের দিন কাটাতে হচ্ছে, রাজ্যের 33 হাজার শিক্ষিত যুবক/যুবতী’দের। সারা বাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠনের শুভাকাঙ্খী, কোচবিহার জেলা উপদেষ্টা কমিটির সদস্য তথা দিনহাটা ২নং ব্লক সভাপতি VRP রফিক মিঞা  বলেন,সরকার বাহাদুর কে মাসে ন্যূনতম 15 হাজার টাকা বেতন দিতে হবে। এর আগেও আমরা VRP রা,অমাদের সমস্যার কথা তূলে ধরতে ব্লকে ব্লকে,বিভিন্ন জেলায় জেলায় ডি এম ডেপুটেশন করেছি।6 ই সেপ্টেম্বর 2018 তে কোলকাতা রাসমনিতে প্রকাশ্য সমাবেশ করেছি।15 ই ফ্রেব্রুয়ারি 2019 নবান্ন অভিযান করেছি।VRP দের মাসিক বেতন চালু করার দাবীতে পথে নেমেছি।আমদের দুঃখ দূর্দশা ও সমস্যার কথা বার বার জানিয়েছি!সরকার কোন সমস্যার সমাধান করেনি। আমরা আমাদের 33 হাজার VRP এর সমস্যার কথা তুলে ধরতে,আজ আবার কোলকাতা মহানগরীতে  জমায়েত হয়ে,নিজেদের 7 দফা দাবী পূরণের লক্ষ্যে প্রকাশ্যে সমাবেশ করলাম।
তিনি আরও জানান-সমাবেশের মধ্যে দিয়ে VRP প্রতিনিধি দল,মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী,মাননীয় রাজ্যপাল ও মাননীয় পঞ্চায়েত মন্ত্রী কে ডেপুটেশন সহ স্মারকলিপি প্রদান করা হয় ।
উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক কামারুজ্জামান,মানব অধিকার কমিশনের সাধারণ সম্পাদক ছোটন দত্ত, বুদ্ধিজীবী মিরাতুন নাহার, ভি আর পি সংগঠনের রাজ্য সভাপতি মিজানুর রহমান, সম্পাদক হরিসাধন মহাশয়,ভি আর পি সংগঠনের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি ইলিয়াস আলম, সম্পাদক অমিত সরকার, কোষাধ্যক্ষ সুজাউদ্দিন মল্লিক আহমেদ, এবং সমস্ত জেলার জেলা কমিটি সহ প্রায় ২৫হাজার ভিআরপি।

রাজ্য কমেটি যে শেষ আপডেট সাধারণভাবে উদ্দেশ্যে বললেন তা জানতে নিচের ভিডিওতে ক্লিক করুন।