VRP NEWS , মুখ্যমন্ত্রীর সাথে কালীঘাটে দেখা করতে বিশেষ প্রতিনিধি দল। শেষ আপডেট দিলেন রাজ্য যুগ্ম সম্পাদক অমিত সরকার

মুখ্যমন্ত্রীর সাথে কালীঘাটে দেখা করতে গেল বিশেষ প্রতিনিধি দল।

শেষ আপডেট দিলেন রাজ্য যুগ্ম সম্পাদক অমিত সরকার।

রাজ্য মিটিংয়ের আর মাত্র একটি দিন বাকি। এমত অবস্থায় শোনা গেল মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সরাসরি দেখা করতে গিয়েছে সারাবাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠনের একটি বিশেষ প্রতিনিধি দল। তিনজনের সেই প্রতিনিধি দলে রয়েছেন হরিসাধন রুইদাস, কুন্তল দত্ত, ও লক্ষীকান্ত দত্ত। পূর্ব থেকেই পরিকল্পনা ছিল বলে জানিয়েছেন রাজ্য যুগ্ম সম্পাদক অমিত সরকার।
      কলকাতায় যাওয়ার পর এই তিনজনের প্রতিনিধিদল অপেক্ষা করতে বলা হয়। সেখানে তারা দেখা করে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক এর সাথে । মুখ্যমন্ত্রীর সাথে দেখা করার প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি । কিন্তু রাজ্যে একটা গন্ডগোলের সৃষ্টি হয় ধর্ম নিয়ে । তাই মুখ্যমন্ত্রী কে সেই দিকে নজর দেওয়ার জন্য বেরিয়ে পড়তে হয় বাড়ি থেকে । তাই প্রতিনিধি দলকে বলা হয় আপনাদের একটি তারিখ দেওয়া হবে এবং সেই তারিখে আপনারা মুখ্যমন্ত্রী সাথে দেখা করতে পারবেন । তারিখটি অবশ্য মোবাইলে ফোন করে দেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছিলেন ।
       সারাবাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠনের রাজ্য কমিটি মুখ্যমন্ত্রী কে একটি লিখিত বার্তা পেশ করেন । এই বার্তাটি এই প্রতিনিধি দল মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পৌঁছে দেন । তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক বলেন দিদি যখন আপনাদের কথা দিয়েছেন অবশ্যই আপনারা নিশ্চিন্তে থাকতে পারেন এ বিষয়ে অবশ্যই নজরে আছে । দিদি ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই আপনাদের একটি ব্যবস্থা করবেন  ।
      এর পরবর্তীতে ওয়ার একটি প্রতিনিধিদল মুখ্যমন্ত্রীর সাথে দেখা করেছেন বলে দাবি করেছেন । সেই প্রতিনিধিদলের কথা অনুসারে মুখ্যমন্ত্রী ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত সময় চেয়েছেন । ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই গ্রাম সম্পদ কর্মীদের বেতন ভুক্ত করবেন বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ।
        বর্তমানে গ্রাম সম্পদ কর্মীরা মাসে কুড়ি দিন করে যে কাজ পাচ্ছেন তার টাকাও তারা প্রতি মাসে ঠিকমতো পাচ্ছেন না এই অভিযোগ দিদির কাছে পৌঁছাতে চেয়ে ছিলেন এই প্রতিনিধি দল। পরবর্তীতে মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সরাসরি একটি বৈঠক করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সারাবাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী সংগঠন। তারা জানিয়েছেন যে জুন মাসের 25 তারিখের মধ্যেই তারা একটি তারিখ পাবেন বলে তারা আশা করেছেন ।
        পূর্বে উল্লেখিত প্রতিনিধিদলের তিন জনের মধ্যে একজনের নাম হরিসাধন রুইদাস । উনি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জনসভায় ই আর পি দের কথা উল্লেখ করেছেন ও তাদের বেতন ভুক্ত করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তাই তিনি মুখ্যমন্ত্রীর ওপর পুরোপুরি ভরসা রাখছেন। এমত অবস্থায় এমন কোনো পদক্ষেপ সারা বাংলা গ্রামীন সম্পদ কর্মী নিতে চায় না যা সরকারের বিপক্ষে যায়। একটি বিশেষ সংবাদ চ্যানেল এ মুখোমুখি মুখ্যমন্ত্রী ইঙ্গিত এর মাধ্যমে গ্রাম সম্পদ কর্মী দের ভালো কাজের কথা উল্লেখ করেছেন। সেখানে তিনি স্পষ্ট বলে দিয়েছেন যে ঐ সমস্ত কর্মীদের তিনি জানুয়ারি মাসের মধ্যেই একটি বিশেষ সিস্টেমের মধ্যে নিয়ে আসবেন । ইতিমধ্যেই অবশ্য রাজ্যে শুরু হয়ে গেছে গ্রুপ ডি পদ থেকে গ্রুপ সি পদে উন্নতি করুন । এই ব্যবস্থার ইঙ্গিত বোঝা যাচ্ছে যে মুখ্যমন্ত্রী অবশ্যই কিছু পদক্ষেপ নিচ্ছেন অবশ্যই ধোঁয়াশা থাকলেও পরবর্তীতে স্পষ্ট হয়ে যাবে ।

  •      কিছু কিছু ব্লকের নতুন ভাবে স্বাস্থ্য সাথীর কাজের জন্য গ্রাম সম্পদ কর্মী দের বাসা হয়েছে অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী নিজেও বলেছেন যে গ্রাম সম্পদ কর্মী দের একটি করে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড তিনি দেবেন। আস্তে আস্তে কথাগুলো সত্য তাই পরিণত হলেও অনেক গ্রাম সম্পদ কর্মীর ভিতর এখনো খুব রয়েছেন এত দেরি হবার জন্য । 

SBGSK TEAM 9 জুন 2019Tec4s VRP-MEET-CM-KALIGHAT
SBGSK TEAM 9 জুন 2019Tec4s VRP-MEET-CM-KALIGHAT

লিংক https://youtu.be/6rxc-Oz4vzM

 Youtube video VRP NEWS

মুখ্যমন্ত্রীর সাথে কালীঘাটের দেখা করতে যাওয়া প্রতিনিধিরা ফিরে এসে এই আপডেট দিলেন রাজ্য কমিটির মুর্শিদাবাদ জেলার মিটিং এ ।


Post a Comment

1 Comments

Please Comment , Your Comment is Very Important to Us.